সুখবর! সর্বপ্রথম ‘করোনা ভাইরাসের’ ভ্যাকসিন আবিষ্কার করল রাশিয়া

রাশিয়ার একটি প্রতিষ্ঠা’নের তৈরি করোনা ভ্যাকসিনের ক্লিনিক্যা’ল ট্রায়াল সফলভাবে সম্পন্ন করার দাবি করেছে একটি রুশ বিশ্ববিদ্যাল’য়।

বিশ্ববিদ্যালয়টির পক্ষ থেকে দাবি করা হয়েছে, এটিই বিশ্বে প্রথম কোন করো’না ভ্যাকসিনের সফল ক্লিনিক্যা’ল ট্রায়াল। রুশ সংবাদ’মাধ্যম এ খবর জানিয়েছে। খবর স্পুটনিকের। করোনাভাইরাসে বিশ্বের ১ কোটি ২০ লাখের বেশি মানুষ আক্রা’ন্ত হয়েছেন।

এদের মধ্যে মৃত্যু হয়েছে ৫ লাখ ৬৯ হাজার মানুষের। করোনা’র কোন চিকিৎসা আবিষ্কৃত না হওয়া ভ্যাকসিনকেই মহামারী মোকা’বেলায় সবচেয়ে কার্যকর উপায় বলে বিবেচনা করা হচ্ছে। বিশ্বে শতাধিক ভ্যাকসিন উদ্ভাব’নের প্রক্রিয়া চলমান রয়েছে।

তবে ক্লিনিক্যাল ট্রায়ালে’র প্রথম ও দ্বিতীয় ধাপে অল্প কয়েকটি ভ্যাকসিন ক্যান্ডিডেট পৌঁছাতে পেরেছে। খবরে বলা হয়েছে, রাশিয়ার গামালে’ই ইনস্টিটিউট অব এপিডেমোলজি এ্যান্ড মাইক্রো’বায়োলজির উদ্ভাবিত করোনা ভ্যাকসিনের ক্লিনিক্যাল ট্রায়াল সফল’ভাবে শেষ হয়েছে।

এই পরীক্ষা ১৮ জুন শুরু হয়েছিল। পরীক্ষাটি পরিচালনা করে রাশিয়ার স্বাস্থ্য মন্ত্র’ণালয়ের সেচেনভ ফার্স্ট মস্কো স্টেট মেডিক্যাল ইউনিভার্সিটি। সেচেনভ বিশ্ববিদ্যালয়ে’র ইনস্টিটিউট অব মেডিক্যাল প্যারাসাইটোলজি, ট্রপিক্যাল এ্যান্ড ভেক্টর বর্ন ডিজিসেস-এর পরিচালক এ্যালে’ক্সান্দ্রা লুকাসেভ জানান, ভ্যাকসিন পরীক্ষা’র এই পর্যায়ের মূল লক্ষ্য ছিল মানব দেহে তা কতটা নিরাপদ তা পর্যবেক্ষণ করা।

যা সফলভা’বে শেষ হয়েছে। তিনি বলেন, ‘এই ভ্যাকসিন সম্পূর্ণ নিরাপদ। বর্তমানে যেসব ভ্যাকসিন প্রয়োগ করা হচ্ছে সেগুলো’র সঙ্গে এই করোনা ভ্যাকসিনের সামঞ্জস্য আছে।’

লুকাসেভ আরও জানান, ভ্যাকসিন’টির উদ্ভাবন এগিয়ে নিতে ইতো’মধ্যে উদ্ভাবকরা পরিকল্পনা গ্রহণ করেছেন। এগুলোর মধ্যে রয়েছে ভাইরা’সের কারণে মহামারী পরিস্থিতি’র জটিলতা ও সম্ভাব্য উৎপাদন বাড়ানো।

Articles You May Like

Leave a Reply

x