সুখবর, এবার বাংলাদেশে করোনার ভ্যাকসিন আবিষ্কার

বৃহস্পতিবার (২ জুলাই) দুপুরে ঔষধ প্রস্তুতকারী কোম্পানি গ্লোব বায়োটেক লিমিটেড প্রতিষ্ঠানটির প্রধান কার্যালয়ে এক সংবাদ সম্মেলনের আয়োজন করা হয়।

ওই সংবাদ সম্মেলনে জানানো হয়, ‘গ্লোব বায়োটেক লিমিটেড’ কোম্পানিটি করোনা ভাইরাসের ভ্যাকসিন উদ্ভাবনের কথা প্রকাশ করেন।

এই প্রথম বাংলাদেশের কয়েকটি কোম্পানি করোনা ভাইরাসের ভ্যাকসিন আবিষ্কার করেছে।
ডা. আসিফ মাহমুদ তাদের উদ্ভাবিত করোনা ভাইরাসের ভ্যাকসিনটির বর্ণনা তুলে ধরেন।

তিনি ভ্যাকসিনটি বর্ণনা দিতে গিয়ে এক পর্যায়ে কেঁদে ফেললেন।
তিনি দ্রুত মাইক্রোফোন খুলে তার চোখ আড়াল করার চেষ্টা করেন।
হঠাৎ করেই তার এই কাঁদার ছবিগুলো ফেসবুকে ভাইরাল হয়ে যায়।

আজ এই ছবিগুলো মেয়েদের জুড়ে চলছে তুমুল আলোচনা।
তিনি বলেন, ‘সারাবিশ্ব যদি পারে তাহলে আমরা কেন পারবো না?
আমরা বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার ভ্যাকসিনের আশায় বসে থাকবো তা কেন হবে?

তারা কবে দেবে আর আমরা কবে নেবো সে আশায় বসে থাকলে চলবে না।’
আসিফ দৃঢ় কন্ঠে বলেন, আমাদের নিজস্ব একটি ভ্যাকসিন দরকার, যেন আমরা অন্যের আশায় বসে না থাকি, এবং দেশের প্রতিটা মানুষ করোনা ভাইরাসের ভ্যাকসিন গ্রহণ করুক।

আমরা অনেকেই চাকরি হারিয়ে ফেলেছি, আর আমরা চাকরি হারাতে চাইনা, আমরা আমাদের সঞ্চয় গুলো নষ্ট করতে চাইনা, আমরা আমাদের সময় গুলো নষ্ট করতে চাইনা, আমরা হারাতে চাইনা আমাদের দেশের মানুষগুলো।

এই সব কথাগুলো বলে তিনি কান্নায় ভেঙে পড়েন।
আসিফ বলেন, প্রাথমিক পর্যায়ে আমরা আমাদের ভ্যাকসিনটির সাফল্য পেয়েছে, আমরা এই ভ্যাকসিন প্রয়োগ করেছিলাম খরগোশের উপর।
সেখানে আমরা সফলতা অর্জন করেছি ।

আশা করা যায় মানব দেহে প্রয়োগ করলে আমরা এই ভ্যাকসিন থেকেই সফলতা পাবো।
তিনি আরো বলেন, তারা সরকারের কাছে যাবেন, এবং সরকারের পদক্ষেপ অনুযায়ী তারা কাজ করে যাবেন।

Articles You May Like

Leave a Reply

x