সিটি-চেলসির চেয়ে,, আমরাই রিয়ালকে হারানোর বেশি, কাছে ছিলাম: পিএসজি কোচ..!

কোচ মরিসিও পচেত্তিনোর কথা শুনে সেটি, মনে হতেই পারে। এই মৌসুমে চ্যাম্পিয়নস লিগে একের, পর এক রাউন্ডে অবিশ্বাস্য প্রত্যাবর্তনের গল্প লিখে ফাইনালে উঠেছে রিয়াল, সে পথে নকআউট পর্বে, তাদের প্রথম শিকার ছিল পিএসজি। শেষ ষোলোতে দুই লেগের,, ১৫০ মিনিট পর্যন্তও পিএসজি ২-০ গোলে এগিয়ে থাকলেও, শেষ ৩০ মিনিটে করিম বেনজেমার চোখধাঁধানো হ্যাটট্রিকে পিএসজিকে বাড়ি পাঠিয়ে, দিয়েছে রিয়াল।

এরপর শেষ আটে চেলসি আর সেমিফাইনালে, ম্যানচেস্টার সিটির বিপক্ষেও প্রত্যাবর্তনের গল্প লিখে ফাইনালে, বেনজেমারা। রিয়ালকে হারানো তো হয়নি, এখন রিয়ালের শিকার অন্য দুই দলের সঙ্গেই যেন, নিজেদের তুলনায় নেমেছেন পিএসজি কোচ প,চেত্তিনো। তাঁর কথা, সিটি-চেলসির চেয়েও রিয়ালকে হারানোর বেশি কাছে গিয়েছিল পিএসজি!

বেনজেমার হ্যাটট্রিকে শেষ ষোলোতে পিএসজিকে বিদায় করে দেয় রিয়াল
বেনজেমার হ্যাটট্রিকে শেষ ষোলোতে, পিএসজিকে বিদায় করে দেয় রিয়াল ছবি: রয়টার্স
‘চেলসি ও সিটির চেয়েও আমরা মাদ্রিদকে, (চ্যাম্পিয়নস লিগ থেকে) বিদায় করে দেওয়ার বেশি কাছে, গিয়েছিলাম। কিন্তু দুর্ভাগ্যবশত, কিছু বাজে মুহূর্ত টুর্নামেন্টে আমাদের, পথচলা থামিয়ে দিল,’ গতকাল সংবাদ সম্মেলনে বলেছেন পচেত্তিনো।

সিটি কোচ পেপ গার্দিওলা রিয়ালকে হারানোর, কাছে যাওয়াকে এভাবে অর্জন হিসেবে দেখবেন কি না, সংশয়, আছে। নিলে পচেত্তিনোর সঙ্গে তর্কে জড়াতে পারেন। মিনিটের হিসাবে গেলে পিএসজির চেয়েও, তো রিয়ালের বিপক্ষে বেশি সময় এগিয়ে ছিল সিটি! পিএসজি, যেখানে দ্বিতীয় লেগের শেষ ৩০ মিনিটে খেই হারিয়েছে, দুই লেগ মিলিয়ে প্রথম ১৫০ মিনিটে, এগিয়ে ছিল, সিটি সেখানে রিয়ালের প্রত্যাবর্তনের গল্পের, শিকার হয়েছে শেষ দুই মিনিটে! দুই লেগ মিলিয়ে ১৮০ মিনিটের মধ্যে ১৭৮ মিনিটই, এগিয়ে ছিল সিটি।

কীভাবে? পিএসজি-রিয়ালের মধ্যে প্রথম লেগে যোগ করা, সময়ের চতুর্থ মিনিটে এমবাপ্পের গোলে এগিয়ে, যায় পিএসজি, দ্বিতীয় লেগেও ৩৯ মিনিটে এমবাপ্পের গোল। ৬১ মিনিটে এক রিয়ালের হয়ে গোল ফেরত, দেওয়া বেনজেমা দুই লেগ মিলিয়ে সমতা, ফিরিয়েছেন ৭৬ মিনিটে, এর ২ মিনিট পর বেনজেমার হ্যাটট্রিক নিশ্চিত করা গোলেই পিএসজির বিদায়ের গল্প, লেখা। অর্থাৎ ২ লেগে মিলিয়ে ৭৭ মিনিটই এগিয়ে ছিল, পিএসজি। আর সিটি?

সিটির বিপক্ষে রিয়ালকে ম্যাচে ফেরান রদ্রিগো..!

Leave a Reply

x