সাফিন এর সকল কুকীর্তি ফাঁস করলেন তাহসিনেশিন!

সাফিন আহমেদ পেশায় একজন ইউটিউবার ও ইংলিশ শিক্ষক।তার শাফিন্স নামে একটি ইউটিউব চ্যানেল ও একটি কোচিং সেন্টার আছে।শাফিন আহমেদ তার ইউটিউব চ্যানেলে প্রতিনিয়ত সোস্যাল আওয়ারনেস ভিডিও আপলোড করে থাকেন,এবং গত রোজার মাসে রোজাদারদের ইফতারের সময় পানি বিতরণ করে বেশ ভাইরাল হয়ে যায়।
কিন্তু কিছুদিন আগে একটি রেস্টুরেন্টে সুপের মধ্যে ব্যাটারি পাওয়া গেছে বলে একটি লাইভ ভিডিও করেন তিনি,তারপর রাতারাতি সেই ভিডিও ভাইরাল হয়ে যায় এবং সবাই তার সমালোচনা শুরু করে।এই ব্যাটারির ঘটনা ভাইরাল হওয়ার পর থেকেই বেরিয়ে আসে তার সকল কুকীর্তি!সহজ বাংলায় বলা যায় কেচোঁ খুঁড়তে সাপ বের হয়ে এসেছে।এরপর বাংলাদেশের জনপ্রিয় ইউটিউবার তাহশিন রাকিব ঘোষণা দেন তাকে রোস্ট করবেন।তারপর তাহশিন সাফিন এর সাথে একটা ফেইসবুক লাইভ করেন যেখানে তাহশিন বলেছিল সাফিন কে হ্যা অথবা না এর ভিতরে উত্তর দিতে।যদি উত্তর গুলো হ্যা হয় তবে তাহশিন তাকে রোস্ট করবে না কারণ সে তার দোষ স্বীকার করে নিয়েছে,আর যদি না হয় তাহলে কড়া রোস্ট নিয়ে হাজির হবেন।কিন্তু শাফিন এর তিনটি উত্তরই ছিল না।এরপর তাহশিন কনফার্ম করেন সে শাফিন কে রোস্ট করবে।এই ঘোষণার পর থেকেই একে একে শাফিন এর দ্বারা অত্যাচারীত,নির্যাতিত,হয়রানি হওয়া সকল ভুক্তভোগী তাহশিন কে বিভিন্ন প্রমাণ দেওয়া শুরু করে।এইসব কিছু মিলিয়ে তাহশিন হাজির হন ৫৮ মিনিটের একটি রোস্টিং ভিডিও নিয়ে।সেখানে তিনি সাফিন এর সব রহস্য ফাঁস করে দেন।কোচিং সেন্টারে সুন্দর ছাত্রীদের যৌন হয়রানি,গভীর রাতে আজেবাজে মেসেজ,অফিসের স্টাফদের টাকা না দেওয়া,ব্যক্তিগত এডিটর এর টাকা মাসের পর মাস আটকে রাখা,হুট করে সুন্দরী মেয়েদের শিক্ষিকা বানিয়ে আবার তাদের বেতন না দিয়ে তাড়িয়ে দেওয়া,কর্মকর্তারা নিজেদের বেতন চাইলে অত্যাচার করা ইত্যাদি।এছাড়াও সাফিন যে চ্যারিটেবল কাজ গুলো করে সব লোক দেখানো,এগুলা সব সে ভিউস আর ফেম এর জন্য করে থাকে।তাহশিন এর রোস্টিং ভিডিও এর কাউন্টার দেওয়ার জন্য অলরেডি সে নাকি একটা ইমোশনাল ভিডিও তৈরি করে রেখেছে।

© সিনিয়র রিপোর্টার কাজী শিমুল
Batch71bd.com

Leave a Reply

x