সম্পর্ক ভয়াবহ, ভারতের সঙ্গে ক্রিকেট নয়; ইমরান খান

ভারতের মোদী সরকারকে ফের একবার আক্রমণ করলেন পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান। ভারতের বর্তমান সরকারের সঙ্গে যে সম্পর্ক তাতে দুই দেশের ক্রিকেট আয়োজন সম্ভব নয়।

পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান এমনটাই মনে করছেন। তার মতে, দুই দেশের সম্পর্ক ভয়াবহ। স্কাই স্পোর্টসের এক প্রামণ্যচিত্রে ইমরান খান জানিয়েছেন, ভারতের ক্ষমতাসীন সরকারের সঙ্গে সম্পর্ক বিবেচনায় দ্বিপাক্ষিক সিরিজ আয়োজন হবে ভয়াবহ ব্যাপার।

পাকিস্তানকে ১৯৯২ সালে বিশ্বকাপ জেতানো এই অধিনায়ক জানান, ভারতের মাটিতে তিনি দুটি সিরিজ খেলেছেন। ক্রিকেট খেলার জন্য তখনকার পরিবেশ ছিল খুবই ভালো।

ইমরান খান বলেছেন, ‘মাঠে তখন অনেক দর্শক থাকতো। দুই দেশের সরকারই বাধা দূরে ঠেলে কাছাকাছি আসার চেষ্টা করতেন।

তার মানে হলো, তখন মাঠের আবহাওয়াও ভালো ছিল। ১৯৭৯ সালের দুই পক্ষের ভক্তরাই দুই দেশের খেলার প্রশংসা করতো। তবে ১৯৮৭ সালের সফরে আমি পাকিস্তানের অধিনায়ক ছিলাম,

তখনকার পরিবেশ অতো ভালো ছিল না। দর্শকরা নানানভাবে আমাদের খোঁচাতো। কারণ দুই দেশের রাজনৈতিক অঙ্গনে অস্থিরতা ছিল।’

ইমরানের ওই সফরের পরও ভারত-পাকিস্তানের দ্বিপাক্ষিক সিরিজ মোটামুটি নিয়মিত ছিল। কিন্তু ২০১২ সালের পর থেকে থেমে আছে দুই দেশের দ্বিপাক্ষিক সিরিজ।

২০০৮ সালে মুম্বাই হামলার পরে দুই দেশ আর টেস্ট সিরিজ খেলেনি। দুই দেশের লড়াই আটকে আছে শুধু আইসিসি (বিশ্বকাপ) এবং এসিসির (এশিয়া কাপ) আসরের মধ্যে। তারপরও ভারত-পাকিস্তান ম্যাচের আবেদন কমেনি ভক্তদের কাছে।

ইমরান খান মনে করেন, এই দুই দেশের ম্যাচ নিয়ে উন্মাদনা অ্যাসেজকেও ছাড়িয়ে যায়, ‘অ্যাসেজ অবশ্যই গুরুত্বপূর্ণ সিরিজ।

তবে ইন্দো-পাক ম্যাচের সঙ্গে কিছুর তুলনা চলে না। কারণ ওই ম্যাচের আবহে যেমন চাপ, চিন্তা থাকে তেমনি থাকে রোমাঞ্চ।’

ইমরান খান ওই প্রামাণ্য চিত্রে জানান, তিনি টেস্ট ক্রিকেটকেই সেরা মনে করেন। তবে টি-২০ ক্রিকেটের দারুণ ভক্ত তিনি। নানান শট দেখতে ভালোই লাগে তার।

Articles You May Like

Leave a Reply

x