মুসলিম উম্মাহর সঙ্গে বিশ্বাসঘাতকতা করেছে আরব আমিরাত; এরদোগান

মুসলিম বিশ্বের প্রভাব’শালী নেতা ও তুরস্কের প্রেসিডেন্ট রজব তায়্যিব এরদোগান বলেছেন, আমরা সংযুক্ত আরব আমি’রাতের সঙ্গে কূ’ট’নৈ’তিক সম্পর্ক স্থগিত করতে পারি।

অথবা আমাদের রাষ্ট্র’দূতকে প্র’ত্যা’হার করতে পারি।
শুক্রবার ইস্তান্বুলে জুমার নামাজের পর সাংবাদিক’দের কাছে এরদোগান একথা বলেন। খবর আনাদলু এজে’ন্সির।

মূলত ই’হু’দি’দের স’ন্ত্রা’সবা’দী অবৈ’ধ রাষ্ট্র ইসরাইলের সঙ্গে বিত’র্কিত চুক্তির জেরে সংযুক্ত আরব আমিরাতের সঙ্গে কূ’টনৈ’তিক সম্পর্ক ছিন্ন করার কথা ভাবছেন এরদোগান।

তুরস্কের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় এক বিবৃতিতে জানায়, ‘নিজেদের সংকীর্ণ স্বা’র্থে ফি’লি’স্তিনি ইস্যুতে বিশ্বাসঘাতকতা করেও আরব আমিরাত একে ফিলিস্তিনিদের জন্য

আত্ম’ত্যাগ করার মতো কাজ হিসেবে উপস্থাপন করতে চাইছে। এটা বিশ্বের পুরো মুসলিম উম্মাহর সঙ্গে বিশ্বাসঘাত’কতা।’

তুরস্ক বলেছে, আমিরাতের এ ভণ্ডামি কোনো দিনও ক্ষমা পাবে না। এ চুক্তি মুসলিম উম্মাহর সঙ্গে বিশ্বাসঘাতকতার শামিল।

গতকাল বৃহস্পতিবার মা’র্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের নিরলস প্রচেষ্টার ফল’শ্রুতিতে ইসরাই’লের সঙ্গে কূট’নৈ’তিক সম্পর্ক স্বাভাবিক করতে সম্মত হয় সংযুক্ত আরব আমিরাত।

শিগগিরই আরব আমিরাত ও ইস’রা’ইলি কর্ম’ক’র্তারা হোয়াইট হাউজে মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের উপস্থিতিতে সংক্রান্ত আনুষ্ঠানিক চুক্তিতে সই করবেন।

Articles You May Like

Leave a Reply

x