ভারত সীমান্ত রেখার পাশে চীনের যুদ্ধবিমান, ভারত-চীনের মাঝে হতে পারে যুদ্ধ

চীন এবং ভারতের মাঝে চলছে তীব্র প্রতিক্রিয়া,
চীনের সেনাবাহিনী এবং ভারতের সেনাবাহিনী লাদাখ এলাকায় মুখোমুখি অবস্থান করছে।

ইতিমধ্যে লাদাখ এলাকায় পাশে চিন সেনাবাহিনী বিমান ঘাঁটি স্থাপন করেছে বলে জানা যায়।
চীনের নতুন ঐ বিমান ঘাঁটিতে চীনের যুদ্ধবিমান এর উপস্থিতি দেখা গেল।

বুধবার (২৭ মে) ভারতের এক গণমাধ্যম এনডিটিভি এর প্রতিবেদনে এই খবর বেরিয়ে আসছে।

খবরে বলা হয়, উপগ্রহ থেকে নেওয়া ছবিটিতে দেখা যায় প্যানগং থেকে প্রায় ২০০ মিটার দূরে একই স্থানে বিমান ঘাঁটি নির্মাণ করছে।
নতুন ঐ বিমানঘাঁটিতে ৪ টি যুদ্ধবিমানের উপস্থিতি দেখা গেছে।

গত ৫ ও ৬ মে প্যানগং লিখে ভারত সেনাবাহিনী এবং চীন সেনাবাহিনীর মধ্যে সংঘর্ষের ঘটনা ইতিমধ্যে হয়ে গেছে।

গোয়েন্দা সংস্থা ‘ডিট্রেসফা’ এর সাথে দুইটি যুদ্ধ বিমানের ছবি উঠে এসেছে।
সেখানে আরো বলা হয়েছে, ওই বিমানঘাঁটিতে খুব দ্রুত কাজ চলছে, এবং ওই বিমানঘাঁটিতে হেলিকপ্টার এবং যুদ্ধবিমানের উপস্থিতি দেখা গেছে।

চীনের এই গারি গুনসা বিমানবন্দরের অবস্থান খুবই গুরুত্বপূর্ণ।
১৪ হাজার ২২ ফুট উঁচুতে অবস্থিত এই বন্দরটি সেনা ও যাত্রীবাহী বিমান উড্ডয়নের জন্য ব্যবহৃত হয়।

প্রকৃত সীমান্তরেখার খুব কাছে অবস্থিত এই বিমানবন্দরের সীমাবদ্ধতাও রয়েছে।
এতটা উঁচু থেকে সেখানে কেবল সীমিত যুদ্ধ সামগ্রী ও জ্বালানি বহন করা সম্ভব।

Articles You May Like

Leave a Reply

x