ভাগ্নে বৌকে ধর্ষণ করে ভিডিও ধারণ, মামা শ্বশুর আটক

সিলেটের ওসমানী’নগর উপজেলায় বিধবা ভাগ্নে বৌকে (৩৭) ধর্ষণ করে ভিডিও ধারণ করেছেন মামা শ্বশুর। অভিযোগ পেয়ে পুলিশ অভিযান চালিয়ে বৃহস্পতি’বার রাতেই ধর্ষক শফজুল মিয়া’কে (৩৮) আটক করে। পরে শুক্রবার দায়েরকৃত মামলায় তাকে গ্রেফতার দেখিয়ে আদালতে প্রেরণ করা হয়।

অভিযুক্ত শফজুল মিয়া উপ’জেলার তাজপুর ইউপির ভাড়েরা গ্রামের মৃত আখলুছ মিয়ার ছেলে।

জানা গেছে, পুলিশের প্রাথমিক জিজ্ঞাসা’বাদে শফজুল ভাগ্নে বৌকে ধর্ষণের কথা স্বীকার করেছেন। তার কাছ থেকে ভিকটিম’কে ধর্ষণের ভিডিওচিত্র উদ্ধার করেছে পুলিশ।

উপজেলার গোয়ালা’বাজার ইউপির গ্রামতলা রোডের একটি বাসায় এ ধর্ষণের ঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় নির্যাতিতা এই নারী বাদী হয়ে শুক্র’বার সকালে শফজুলকে আসামী করে ধর্ষণ ও পর্ণোগ্রাফি আইনে ওসমানী’নগর থানায় পৃথক দুটি (মামলা নং-১২ ও ১৩) দায়ের করেছেন। ওই নারীর ডাক্তারি পরীক্ষার জন্য ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের ওয়ান স্টপ ক্রাই’সিস সেন্টারে প্রেরণ করা হয়েছে।

ওসমানী’নগর থানার ওসি এস এম আল মামুন জানান, উপজেলার গোয়ালাবাজার ইউপির গ্রাম’তলা রোডের একটি বাসাতে ভাড়া থাকতেন তিন সন্তানের জননী বিধবা ওই মহিলা। বিগত প্রায় দুই বছর পূর্বে ওই মহিলাকে তার মামা শ্বশুর শফজুল মিয়া সিলেট নগরীর দর’গাহ গেইট এলাকায় একটি আবাসিক হোটেলে নিয়ে গিয়ে ধর্ষণ করে ভিডিও ধারণ করে রাখেন। এর পর থেকে এই ধর্ষণের ভিডিওর ভয় দেখিয়ে মহিলা’কে জিম্মি করে বিভিন্ন সময়ে শফজুল তাকে একাধিক’বার ধর্ষণ করেন। সর্বশেষ গতকাল বৃহস্পতিবার বেলা ২টার দিকে মহিলার বাসায় তাকে ফের ধর্ষণ করেন শফজুল।

ওসি জানান, নির্যাতিতা ওই মহিলা বৃহস্পতি’বার দিবাগত রাত ১১টার দিকে ওসমানীনগর থানায় এসে মামা শ্বশুরের বিরুদ্ধে ধর্ষণের অভিযোগ করেন। পুলিশ রাতেই অভিযান চালিয়ে শফজুল’কে গোয়ালাবাজার এলাকা থেকে আটক করে। পরে শুক্রবার সকালে ওই মহিলার দায়ের’কৃত মামলায় তাকে গ্রেফতার দেখিয়ে আদালতে প্রেরণ করা হয়।

Leave a Reply

x