বিয়ের দাবিতে মেয়ের বাড়িতে ছেলের অনশন, পরে বিয়ে

প্রায়ই শোনা যায়, বিয়ের দাবিতে প্রেমিকে’র বাড়িতে প্রেমিকার অনশ’নের কথা। তবে এবার ঘটেছে ব্যতিক্রম ঘটনা। রাজ’শাহীর দুর্গাপুর উপজেলার নওপাড়া গ্রামে বিয়ে’র দাবিতে প্রেমিকার বাড়িতে গিয়ে অন’শন শুরু করেছেন ওমর ফারুক নামে’র এক যুবক।

বৃহস্পতি’বার ভোর থেকেই উপ’জেলার নওপাড়া গ্রামে এমন ঘটনা ঘটেছে। পরে উভ’য়ের পরিবারের সম্মতিতে ১০ লাখ টাকা দেন’মোহর নির্ধারণ করে তাদের বিয়ের বন্ধনে আবদ্ধ করা হয়ে’ছে বলেও জানা গেছে।

স্থানীয়’রা জানান, উপজেলার নওপাড়া গ্রামের আক্তা’র আলীর মেয়ে অন্তরা খাতুন (২৪)। ওই একই গ্রামের আব্দুর রাজ্জাকে’র ছেলে ওমর ফারুক (২৫)। দীর্ঘ’দিন ধরে তাদের মধ্যে প্রেমের সম্পর্ক চলছিল। এক পর্যায়ে অন্তরার বাড়ি’তে বিয়ের প্রস্তাব দেন ওমর ফারুক। কিন্তু বাধ সাধেন অন্তরা। তিনি সময়’ক্ষেপণ করতে থাকেন। পরে কোনো উপায় না দেখে বৃহস্পতি’বার ভোর থেকে অন্তরার বাড়ির সামনে অন’শন শুরু করেন ফারুক। প্রায় ৭ ঘণ্টা অনশনের পরে এলাকা’বাসীর সহায়তায় তিনি অনশন ভঙ্গ করেন। পরে উভয়ের পরিবারের স্বজন’দের সঙ্গে কথা বলে বেলা ১১টার দিকে কাজী ডেকে তাদের বিয়ে রেজিস্ট্রি করা হয়। বিয়েতে ১০ লাখ টাকা দেন’মোহর ধার্য করা হয়

এ বিষয়ে স্থানীয় ইউ’নিয়ন পরিষদ (ইউপি) সদস্য (মেম্বার) জয়নাল আবে’দীন বলেন, ‌‘তাদের দুজনের মধ্যে পুরোনো প্রেমে র সম্পর্ক রয়েছে। এর আগেও ওমর ফারুক ও অন্তরাcকে নিয়ে এলাকায় এমন সমস্যা হয়েছিল। তারা একে অপর’কে ভালোবাসেন। পরিবারের স্বজনরা মেনে না নেয়ায় ফারুক বিয়ের দাবিতে অনশন শুরু করে’ছিলেন।’

তিনি আরও বলেন, তাদের নিয়ে যেন বার’বার সমস্যা পোহাতে না হয় এবং কেউ যেন কোনো ধরনের অঘ”টন না ঘটিয়ে ফেলেন, সেজন্য দুই পরিবারের সঙ্গে আলাপ-আলো’চনা করে তাদের বিয়ে দেয়া হয়েছে।

Leave a Reply

x