বাসায় যে জায়নামাজ, কোরআন, নামাজের ঘর আছে সেটা দেখেন না’ 

ধর্ষণ ও হত্যা’চেষ্টার মামলা করে হঠাৎ আলোচনায় আসা চিত্র’নায়িকা পরীমনি তার ফেস’বুক পেজে লিখেছেন, ‌‌‘টুপ কইরা কথায় কথায় চরিত্র হাতাই’তে আসেন! বাসার মধ্যে মদের খালি বোতলের শোপিস দেই’খা চরিত্র বুইঝা ফেলেন কেমনে বলেন তো!? বাসায় যে জায়’নামাজ, কোরআন, নামাজের ঘর আছে সেইটা কেন দেখতে পাই’লেন না আপনে!

বৃহস্পতি’বার সন্ধ্যায় স্মৃতি পরী’মনি নামে একটি ফেসবুক অ্যাকা’উন্টে স্ট্যাটাস দিয়ে সেটি তার ভেরি’ফায়েড পেজ থেকে শেয়ার করেন। সে’খানে তিনি ‘সরি’ লিখে এ স্ট্যাটাস দেন। 

তিনি কাউ’কে উদ্দে’শ্য করে এ স্ট্যাটাস দিয়ে’ছেন। তবে কার উদ্দেশ্যে দিয়েছেন তা স্পষ্ট করেন’নি। 

ঢালিউড নায়ি’কার এ স্ট্যাটাস পাঠক’দের জন্য হুবহু তুলে ধরা হলো-
‘সমস্যা হ’ইলো …
আমি মাইয়া লোক কিন্তু লুতু’পুতু মাইয়া টাইপ আচরন করি নাই আপ’নার সাথে, ঘইটা গেল সম’স্যা! 
চিকন সুরে ভাইয়া ভাইয়া করিনা’ই আপনারে, বিশাল সম’স্যা!
কাজের ফাঁকে আলগা রসের পিরি’তের আলাপ করি নাই, ব্যাস এই’তো সমস্যা!
কাজে মত প্রকাশে’র অধিকার দেখাইছি, তাতেই সম’স্যা! 

আপানার চো’ক্ষের সামনে আরো পাঁচ-দশ জনের মতো না হারা’ইয়া যাইয়া দিন দিন ক্যারিযার বানাই’তেছি, নাম কামাই’তেছি..এইখানে হইয়া গেল সম’স্যা! 

আপনি পরি’চালক হইয়া ৫ বছরে একটা সিনেমা বানান আর আমার এক বছরে পাঁচ সিনে’মা রিলিজ হয়, আমার তো প্রচুর সম’স্যা!

আপনারে প্রযো’জক বাগাইতে দিলামনা, ওরে স’মস্যা! 

শুটিং সেটে উহ আহ করা দামরা ধইরা নগদে থাপ’ড়াই, চরম সমস্যা!

কোন’রকম চামচামি না নিয়া আপনার মুখের উপরে তি’তা সত্য বইলা দেই, আমারই তো সমস্যা!
তারপর’তো বিড়ি খাওয়া, মদ খাও’য়া, প্রেম করা, বিদে’শে ইচ্ছা মত ঘুরতে যাওয়া, শুয়োরের বাচ্চা-বাল’ছাল বইলা গালি’টালি দেওয়া, পিরিয়ড নিয়া কথা বলা এই’গুলাতো আছেই! 
পাইছেন কই এই’গুলা? আমি’ই তো দিছি। 

আপ’নাদের মন ভরে না কেন বলে’ন তো!?

আহারে একটু জি’রান এইবার। ক্ষমা দেন। অন্যায়’কে অন্যায় বলতে শিখেন! অপরাধী’কে অপরাধী বলতে শিখেন। একটা ন্যায়ের জন্যে লড়াই’য়ের সাথে থাকেন। না পারলে এইবার অন্তত নিজের ব্যাক্তি’গত হিংসাত্মক আক্র’মণ কইরেন না প্লিজ।

এই লড়াই শুধু যে আমার একার না এইটা বো’ঝার সু-জ্ঞান উদয় হোক সবার।’

গত ১৩ জুন নিজের ভেরি’ফায়েড ফেসবুক পেজে এক স্ট্যাটা’সে ধর্ষণচেষ্টা ও হত্যা’চেষ্টার অভিযোগ করেন অভি’নেত্রী পরীমনি। বিষয়টি নিয়ে তোলপাড় শুরু হলে পর দিনই সাভার থানায় শুধু ধর্ষণ’চেষ্টার অভিযোগে একটি মামলা করেন তিনি। ১৪ জুন উত্তরার একটি বাসা থেকে ঢাকা মহা’নগর গোয়েন্দা পুলিশ অভিযুক্ত নাসির ইউ মাহমুদ ও তুহিন সিদ্দিকী অমি’কে মাদক’সহ গ্রেফতার করে।

Leave a Reply

x