বাংলাদেশে কমে গেছে ‘করোনা ভাইরাসের’ তীব্রতা

বাংলাদেশে কমে আসছে করো’না ভাইরাসের প্রকোপ। অপরদিকে প্রতি’বেশী দেশ ভারতে ভয়াবহ আকার ধারণ করেছে করোনা সংক্রমণ।

বিশ্বব্যাপী করোনা ভাইরাস নিয়ে তথ্য দেওয়া মার্কিন যুক্ত’রাষ্ট্রের জনস হপকিন্স বিশ্ব’বিদ্যালয়ের রিপোর্টে এ কথা জানানো হয়।

সোমবার (৬ জুলাই) জনস হপকিন্সের ট্র্যাকার অনুযায়ী, বাংলাদেশে করোনা ভাইরা’সের প্রকোপ কমে আসতে শুরু করেছে। সংক্র’মণের ১৮তম সপ্তাহে এসে আক্রান্ত ও মৃত্যুর হার দুটিই কমছে।

বাংলা’দেশের জন্য স্বস্তির খবর দিলেও ভারতে করোনা সংক্রমণের হার ঊর্ধ্ব’মুখী বলে জানায় জনস হপকিন্স বিশ্ববিদ্যালয়।

জনস হপকিন্সের রিপোর্ট বলছে, বাংলা’দেশে কোভিড-১৯ প্রথম সংক্রমণ ১১৯ দিন আগে মার্চ মাসের ৮ তারিখে ধরা পড়ে’ছিল। এরপর থেকে এখন পর্যন্ত ১,৬৮,৬৪৫ জন করো’নায় আক্রান্ত হন। আর মারা যান ২,১৫১।

বাংলাদেশে স্থানীয় সংক্র’মণের ১৪, ১৫, ১৬ ও ১৭তম সপ্তাহ জুড়ে আক্রান্ত ও মৃত্যু সমান্তরাল’ভাবে চূড়ায় উঠেছে। ১৮তম সপ্তাহে এসে এই রেখাচিত্র দুটি নিম্নমুখী হতে শুরু করেছে।

রিপোর্টে বলা হয়েছে, পরি’সংখ্যান বিশ্লেষণ করে দেখা গেছে করো’না সংক্রমণের শীর্ষে রয়েছে বিশ্বের ২০টি দেশ। তবে বাংলা’দেশের মতো রাশিয়া, চিলি, ইংল্যান্ড ও মিশরে করো’নার প্রকোপ নিম্নমুখী।

বরা’বরের মতো করোনা সংক্র’মণের হারে ঊর্ধমুখী রয়েছে যুক্তরাষ্ট্র, ভারত, ব্রাজিল, মেক্সিকো, পেরু, ইরান, কলম্বিয়া, দক্ষিণ আফ্রিকা, ইরাক, বলিভিয়া, ইন্দোনেশিয়া, সৌদি আরব, ইকু’য়েডর এবং আ’র্জেন্টিনা।

Articles You May Like

Leave a Reply

x