বন্যায় বাংলাদেশর ৪০ ভাগ ডুবে যাওয়ার আশঙ্কা!

চলমান দ্বিতীয় দফার বন্যা দীর্ঘ’স্থায়ী হওয়ার আশঙ্কা করছে বন্যা পূর্বাভাস ও সতর্কী’করণ কেন্দ্র। উজান থেকে আসা পানিতে জুলাই মাস জুড়েই দেশের ৪০ ভাগ এলা’কা ডুবে থাকতে পারে।

বন্যাকবলিত হতে পারে ২৫ জেলার মানুষ। আবাহাওয়াবিদ’রা জানান, মৌসুমী বায়ু দীর্ঘ সময় সক্রিয় থাকায় বাংলা’দেশের উজানে ভারতের ভূখন্ডে বৃষ্টির পরিমাণ বেশি হচ্ছে।

এবার দীর্ঘ সময় বাংলাদেশ ও ভারতের আকাশে সক্রিয় মৌসু’মী বায়ু। ফলে ভারতে’র আসাম, গোয়াহাটি মেঘালয়, পশ্চিমবঙ্গ, জলপাইগুড়ি ও দার্জিলিংসহ হিমালয় অঞ্চলে বৃষ্টি বেশি হচ্ছে।

পানির উচ্চতা বেড়ে যাওয়ায় ভারত তাদের ব্যারেজগুলো’র জলকপাট খুলে দেয়। উজানের ঢল নামে বাংলাদেশের বিভিন্ন নদনদীতে।

ব্রহ্মপুুত্র, তিস্তা, ধরলা, দুধ’কুমার নদীর বেশ কয়েটি পয়েন্ট দিয়ে উজানের ঢল কুড়িগ্রাম ও লালমনিরহাটসহ এই অঞ্চলে’র প্রায় সব কটি জে’লার বহু এলাকা প্লাবিত করে।

সুরমা, কুশিয়ারা, সোমেশ্বরী নদী দিয়ে প্রবাহিত পানি সিলেট ও সুনামগঞ্জসহ ঐ অঞ্চলে’র জেলাগুলো প্লাবিত হয়।

যমুনা ও মেঘনায় পানি বেড়ে প্লাবিত হয় দেশের মধ্যাঞ্চল। দ্বিতীয় দফা’র বন্যায় প্রায় ২৫ জেলার ৪০ ভাগ এলাকা ডুবে থাকতে পারে- এমন আশঙ্কার কথা জানান বন্যা পূর্বা’ভাস ও সতর্কীকরণ কেন্দ্রের প্রধান নির্বাহী প্রকৌশলী আরিফুজ্জামান ভুইয়া।

আবহাওয়াবি’দরা জানান, মৌসুমী বায়ূর স্থায়িত্ব দীর্ঘ হওয়ায় বৃষ্টি বেশি হচ্ছে। এ কারণে বন্যার স্থায়ি’ত্বকালও বেশি হতে পারে।
এরই মধ্যে ১৬ জেলা প্লাবিত হয়েছে। ক্ষতি হয়েছে বসত’বাড়ী ও ফসলের।

Articles You May Like

Leave a Reply

x