পাপিয়া কলেজ হোস্টেলে থাকা অবস্থায়, তার রুমে যা করত..

নরসিংদী জেলার মহিলা লীগের সাধারণ সম্পাদক ছিলেন শামীমা নূর পাপিয়া।

পাপিয়াকে তার অপকর্মের কারণে তাকে দল থেকে বহিষ্কৃত করা হয়।

পাপিয়া যে অপকর্মের সাথে জড়িত সেগুলো তার কলেজ লাইফ থেকেই প্রকাশ পেয়েছে।

পাপিয়া যখন নরসিংদী জেলা সরকারি কলেজে পড়াশোনা করতেন,
তখন পাপিয়া ওই নরসিংদী জেলা সরকারি কলেজের হোস্টেলে থাকতেন ।

২০০৬ সালের দিকে নরসিংদী জেলার সরকারি কলেজের মহিলা হোস্টেলের উদ্বোধন করা হয়।
সেই হোস্টেলে পাপিয়া কেউ থাকার জন্য একটি সিট দেওয়া হয়।

কিছুদিন যাওয়ার পর ওই হোস্টেলের একটি রুম পাপিয়া নিজের করে নেয়।

তার ওই রুমে বহিরাগত অনেক ছাত্রী আসা যাওয়া করত।

সেই রুম থেকে মেয়েদের কে প্রভন দেখিয়ে বা চাপ দিয়ে খারাপ কাজে লিপ্ত করত পাপিয়া।

পাপিয়া ওই হোস্টেলে নিজের দাপট দেখিয়ে বহিরাগত ছেলেদের কেউ প্রবেশ করা তো।

পাপিয়ার এইসব অপকর্মের কথা স্থানীয়রা প্রায় সবাই জানতো,
কিন্তু ভয়ে তারা মুখ খোলেনি ।
আইন-শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর সূত্রে জানা যায়…
পাপিয়া নরসিংদী জেলা সরকারি কলেজে পড়া অবস্থায় সুমনের সাথে তার পরিচয় হয় ।
পরবর্তীতে তারা প্রেমের বন্ধনে আবদ্ধ হয় ।
এভাবে কিছুদিন প্রেম করার পর তারা বিয়ে করে নেয়।

Articles You May Like

Leave a Reply

x