পাপিয়া এক শীর্ষ কর্মকর্তার জন্য ১২ জন রাশিয়ান নারী আনেন ঢাকায়

নরসিংদী জেলার বহিস্কৃত যুব মহিলা লীগের সাধারণ সম্পাদক পাপিয়া ।

শীর্ষ পর্যায়ে লোকদের সাথে তার সম্পর্ক ছিল গভীর ।

অনেক ক্ষমতাধর ব্যক্তি এবং অনেক প্রভাবশালী ব্যক্তি ও পাপিয়ার সাথে যোগাযোগ ছিল।

পাপিয়া ওইসব ক্ষমতাধর ব্যক্তি এবং প্রভাবশালী ব্যক্তিদের কাছে সুন্দরী মেয়েদেরকে পাঠিয়ে দিতো,
বা তার আস্তানায় ঐসব লোক আসত।
এবং পাপিয়া হাতিয়ে নিতো কোটি কোটি টাকা।

রিমান্ডের প্রথম দিনেই পাপিয়া এবং তার স্বামীর মুখ দিয়ে বেরিয়ে আসে অনেক চঞ্চল কর তথ্য।

পাপিয়া অনেক এমপি – মন্ত্রী এবং ক্ষমতাধর লোকদের কাছে নারী সরবরাহ করতেন।

পাপিয়ার এই ব্যবসার নেটওয়ার্ক দেশ ছাড়াও দেশের বাইরে ছিল ।

পাপিয়া বেশ কিছুদিন আগে ১২ জন নারী কিনেছিল বাংলাদেশ, কিন্তু ঐসব রাশিয়ান নারীকে বিমানবন্দরে আটকে দেওয়া হয়।

পরবর্তীতে ওই শীর্ষ কর্মকর্তারা ১২ জন নারীকে ছেড়ে দেয় ।

ওইসব নারী দেরকে নিয়মিত এমপি-মন্ত্রী কাছে পাঠাই দিতেন পাপিয়া।

Articles You May Like

Leave a Reply

x