‘পাপিয়া একমাত্র শেখ হাসিনাকেই ম্যানেজ করতে পারেনি’

আইন প্রয়োগকারী সংস্থাটি পাপিয়াকে রিমান্ডে নেওয়ার পর থেকে অনেক চাঞ্চল্যকর তথ্য বেরিয়ে আসছে পাপিয়ার কাছ থেকে ।

তারা পাপিয়ার ফোন কে জব্দ করে, পাপিয়ার ফোনে পাপিয়ার সাথে অনেক এমপি- মন্ত্রী এবং অনেক প্রভাবশালী লোকের ছবি ছিল।

আইন প্রয়োগকারী সংস্থাটি পাপিয়াকে প্রশ্ন করেছিল…
এত এমপি মন্ত্রী এবং প্রভাবশালী লোকের সাথে কেমন করে এই সম্পর্ক হয়েছিল??

উত্তরে পাপিয়া বলেছিল…
একমাত্র প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে ম্যানেজ করতে পারেনি পাপিয়া,
উনি ছাড়া অনেক এমপি- মন্ত্রী এবং কোন ক্ষমতাধর ব্যক্তি কি ম্যানেজ করে নিয়েছে পাপিয়া।

সূত্রে জানা যায়.. ২০২০ সালের শুরুর দিক থেকে পাপিয়ার টার্গেট ছিল মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সাথে সাক্ষাৎ করা ।

প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে দেখা করার জন্য সে অনেক অর্থ ব্যয় করেছিল,
কিন্তু অর্থ ব্যয় করেও মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে পাপিয়া দেখা করতে পারেনি ।

পাপিয়া এর আগেও ২০১৯ সালের ৩০ ডিসেম্বরের নির্বাচনের পর,
প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে দেখা করার জন্য অনেকভাবে চেষ্টা করেছিলেন ।

ওই সময় পাপিয়া মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে দেখা করার জন্য অনেক এমপি-মন্ত্রীর সাথে ও সাক্ষাত করেছিলেন।

এছাড়াও মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের সাবেক কর্মকর্তার সাথে তিনি যোগাযোগ করেছিলেন ।

তিনি পাপিয়াকে আশ্বাস দিয়েছিলেন যে,
তিনি পাপিয়াকে মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে সাক্ষাৎ করিয়ে দিবেন ।
শেষ পর্যন্ত এটাতেও সফল হতে পারেনি পাপিয়া ।

সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা গেছে,
পাপিয়া মনে করতেন..
প্রশাসন এবং রাজনীতিবিদদের পাপিয়া ম্যানেজ করতে পারবেন,
কিন্তু প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা কে তিনি ম্যানেজ করতে পারতেন না।

তবুও সে প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে সাক্ষাৎ করতে চেয়েছিল।

জানা গেছে..
পাপিয়ার ফোনে অনেক এমপি-মন্ত্রীর নাম্বার সেভ করা ছিল।
এবং ৫ জন এমপির সাথে সে নিয়মিত কথা বলতো।

জানা গেছে পাপিয়ার এই অপকর্ম প্রায় ৩৩ জন এমপি জানতেন,
একমাত্র মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা জানতেন না তাঁর এই অপকর্মের কথা।

Articles You May Like

Leave a Reply

x