পাপিয়ার ১২৯ দিনের হোটেল বিল, ‘৩ কোটি ২৩ লাখ টাকা’

মহিলা লীগের বহিষ্কৃত শামীমা নুর পাপিয়া,
সে অবৈধভাবে টাকা উপার্জন করে টাকার পাহাড় গড়ে তুলেছিল।

সে মদের ব্যবসা এবং মেয়েদের কে দিয়ে দেহ ব্যবসা করতো।

তারা আস্তানায় যে সকল লোক যাতায়াত করত তারা ছিল অনেক ভিআইপি পারসন।

অনেক এমপি মন্ত্রী এবং প্রভাবশালী ব্যবসায়ীরা ছিল তার কাস্টমার।

আর অবৈধ ব্যবসার জন্য হোটেল ওয়েস্টিনের ৪টি রুম ভাড়া নিয়েছিল।

সেই রুমগুলোতে অবৈধ ব্যবসা করত,
এবং তার কাস্টমার দের কে নিয়ে মিটিং করতে।

সূত্রে জানা যায়, পাপিয়া ওই পাঁচ তারকা হোটেলে ১২৯ দিন অবস্থান করেছিলেন।

ওই পাঁচ তারকা হোটেলের ১২৯ দিনের ভাড়া এবং আনুষঙ্গিক খরচ বাবদ পাপিয়া ৩ কোটি ২৩ লক্ষ টাকা বিল পরিশোধ করেছে।

পাপিয়া বলেন, তার প্রতিদিনের খরচ বাবদ ছিল আড়াই লক্ষ টাকারও বেশি।
রিমান্ডে এসব কথা বলেন পাপিয়া।

পাপিয়া বলেন গত বছরের 22 সেপ্টেম্বরে তাকে এক মহিলা নেত্রী ওই পাঁচ তারকা হোটেলে নিয়ে যায়।

তারপর ওই হোটেল কর্তৃপক্ষদের পরিবেশনা দেখে সে মুগ্ধ হয়ে যায়।

তারপর থেকে সেই সিদ্ধান্ত নেয় , ওই হোটেলে সে থাকবে।

Articles You May Like

Leave a Reply

x