পাপিয়ার জন্য হোটেল ওয়েস্টিনের যে ৫ টি ভুল

পাপিয়া হোটেল ওয়েস্টিনে গিয়ে যেসকল কাজকর্ম করত,
তাই এখন গোয়েন্দা সংস্থার কাছে খতিয়ে দেখার বিষয়।
পাপিয়া হোটেল ওয়েস্টিনে গিয়ে অবৈধ ব্যবসা, যৌন কারবারি এবং মাদক ব্যবসা করতেন ।

পাপিয়ার অনেক অপকর্মের ছিল যেগুলো হোটেল ওয়েস্টিনের কর্মকর্তারা জানান তো ।

হোটেলের ঐসব কর্মকর্তারা তার এই অবৈধ অপকর্মের কথা জেনেও তার বিরুদ্ধে কোন অ্যাকশন নেয়নি ।

‘পাপিয়াকে ঘিরে হোটেল ওয়েস্টিনের পাঁচটি অপরাধ’।

১) হোটেল ওয়েস্টিনে পাপিয়া ১২৯ দিন ছিল,
হোটেল ওয়েস্টিনে থাকা অবস্থায় পাপিয়ার কোন তথ্য-উপাত্ত হোটেল ওয়েস্টিন নেয়নি হোটেল ওয়েস্টিন।

২) রাত ১২ টার পর থেকে পাপিয়ার আমন্ত্রিত অতিথিদের আসতো হোটেল ওয়েস্টিনে ।
সেখানে তারা মদ পান করতো,
ফাইভ স্টার হোটেল গুলোতে রাত বারোটার পর মদ বিক্রি করা নিষিদ্ধ।
এ শর্ত না মেনে হোটেল ওয়েস্টিন বিক্রি করত।

৩) হোটেলের বারে যারা মদ পান করতো তারা যদি দেশি হয়, তাহলে তাদের লাইসেন্স থাকা লাগতো।
কিন্তু হোটেল ওয়েস্টিন এগুলা দিয়ে দেখেনি।

৪) পাপিয়া হোটেল ওয়েস্টিনে শুধু মদ নয় এছাড়াও গাঁজা, ইয়াবা এসবের কারবারি করত।
কিন্তু এগুলো হোটেল ওয়েস্টিন খতিয়ে দেখে নি।

৫) পাপিয়া হোটেল ওয়েস্টিনে অবস্থায় তারা স্বামী অস্ত্র নিয়ে যাওয়া আসা করতো,
কিন্তু পাঁচ তারকা হোটেলে অস্ত্র নিয়ে যাওয়া আসা একদমই নিষিদ্ধ।

এসব বিষয়ে হোটেল ওয়েস্টিন কোন অ্যাকশন নেইনি পাপিয়ার বিরুদ্ধে ।

Articles You May Like

Leave a Reply

x