March 2, 2020 || 4:18 am

পাপিয়ার আস্তানায় যৌনকর্মী হিসাবে পাহাড়ি মেয়ে

যুব মহিলা লীগের বহিস্কৃত নারী পাপিয়া,
পাপিয়া নরসিংদী জেলার মহিলা যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক ছিলেন।

পাপিয়াকে দল থেকে বহিষ্কৃত করা হয় তার অবৈধ অপকর্মের কারণে।
বর্তমানে পাপিয়া ‘নারী সরবরাহকারী’ নামে পরিচিত।

পাপিয়া চাকরি দেওয়ার লোভ দেখিয়ে গ্রাম থেকে মেয়েদেরকে এনে,
তার অধীনে দেহ ব্যবসায় লিপ্ত করে দিতেন ।

পাপিয়া আর এই অবৈধ অপকর্মের বিস্তৃত ছিল সারা বাংলাদেশে।
এবং দেশের বাইরে ছিল তার নেটওয়ার্ক।

দেশের বাহির থেকে ও মেয়ে নিয়ে আসতেন তার পতিতা আস্তানায়।

তার যে সকল কাস্টমার,
তারা ছিল অনেক প্রভাবশালী এবং অনেক বড় ব্যবসায়ীরা।

তার আস্তানায় যে সকল বড় বড় ব্যবসায়ী আসতেন,
তার অপকর্ম ভিডিও করে ওই ভিডিওগুলো দিয়ে পরবর্তীতে ওই ব্যবসায়ীকে ব্ল্যাকমেল করতেন ।

এভাবে পাপিয়া লক্ষ টাকা হাতিয়ে নিয়েছেন।

সূত্রে জানা গেছে.. তায়্যিবা বলেছেন, চাহিদামতো ভারত নেপাল ভুটান থাইল্যান্ড এবং রাশিয়া থেকে মেয়েদের আনা হতো, তাদের আস্থা নাই যৌনকর্মী হিসেবে।

এর পাশাপাশি বাংলাদেশের পাহাড়ি মেয়েদের কেউ আনা হতো তার আস্তানায়।

Related Posts
x