নিজের মেয়েকেই ধর্ষণ করল বাবা

রাজবাড়ীর পাংশায় ষষ্ঠ শ্রেণী পড়ুয়া নিজের মেয়েকে ধর্ষণ করল বাবা।

ধর্ষক বাবা রাজা মিয়া (৩৮) রিক্সা চালাইতেন।
পরে তাকে পুলিশ আটক করে।

শনিবার সকালে উপজেলার পাট্টা ইউনিয়ন থেকে ধর্ষক বাবা রাজা মিয়াকে গ্রেফতার করে পুলিশ।

রাজা মিয়া ওই ইউনিয়নের নিভা গ্রামের বাসিন্দা।

পাংশা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা আহসান উল্লাহ জানায়, ধর্ষিত ওই ছাত্রীকে ডাক্তারি পরীক্ষা প্রস্তুতি নিচ্ছেন ।

নির্যাতিত ছাত্রী জানান, তার বাবা-মা দুজনই কুষ্টিয়া থাকে, তার বাবা সেখানে রিকশা চালাতেন।
তার মা সেখানে তার বাবাকে রান্না করে দিতেন।

মেয়েটি তার দাদা বাড়িতে থাকতেন,
এবং সেখানকার একটি মাদ্রাসায় সে ষষ্ঠ শ্রেণিতে পড়ালেখা করতেন।

মেয়েটি আরো বলে,
মাঝে মাঝে তার বাবা এসে তাকে ধর্ষণ করতো।

বাবাকে এসব কাজ করতে বারবার নিষেধ করেন, তারপরেও মাঝে মাঝে তাকে ধর্ষন করত।

সব শেষে গত বৃহস্পতিবার তার বাবা এসে তাকে ধর্ষণ করে এবং পরে কুষ্টিয়ায় চলে যায়।

এরপর এসব ঘটনা তিনি তার চাচা দেরকে বলে দেয়, এবং আস্তে আস্তে পুরো গ্রামবাসী এ ঘটনা জেনে যান।

স্থানীয়রা জানিয়েছেন, শনিবার রাজা মিয়া আবার বাড়িতে আসে,
এবং স্থানীয়রা তাকে মারধর করে ইউনিয়ন অফিসে নিয়ে যায়।

সেখানকার চেয়ারম্যান তাকে পুলিশের হাতে ধরিয়ে দেয়।

চেয়ারম্যান জানাই, শত শত লোকের মাঝে রাজা মিয়া তার মেয়েকে ধর্ষণের কথা স্বীকার করেন।

Articles You May Like

Leave a Reply

x