দেশের যেসকল এলাকায় সাধারণ ছুটি ঘোষণা করা হয়েছে

দেশে লাফিয়ে বাড়ছে করোনা ভাইরাসের রুগী।

এর সাথে প্রতিদিন বেড়েই চলেছে করোনা ভাইরাসের সংক্রমণ,
এবং করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে প্রতিদিন মৃত্যুর সংখ্যা ঊর্ধ্বমুখী হারে বেড়ে চলছে বাংলাদেশে।

এই করোনাভাইরাস কে ঠেকাতে বাংলাদেশ সরকার ভিন্ন পদ্ধতিতে লকডাউন চলু করেছেন।
যেসকল এলাকাগুলোতে করোনা সংক্রমণের ঝুঁকি সব থেকে বেশি সেসব এলাকাগুলোতে রেড জোন লকডাউন ঘোষণা করা হয়েছে।

সেইসাথে যেসকল এলাকাগুলোতে রেড জোন লকডাউন ঘোষণা করা হয়েছে ওইসব এলাকাগুলোতে থাকবে সাধারণ ছুটি।
এমন তথ্য জানিয়েছেন জনপ্রশাসন প্রতিমন্ত্রী ফরহাদ হোসেন।

এছাড়াও ‌৬৬ দিন পর লকডাউন কে শর্তসাপেক্ষে খুলে দেওয়া হয়েছে, আবার ১৫ জুনের পর থেকে এই লকডাউন আবারো ঘোষণা করা হতে পারে।
যে সকল শর্ত সাপেক্ষে লকডাউন খুলে দেওয়া হয়েছিল, সীমিত আকারে গণপরিবহন চলবে, গণপরিবহনে সামাজিক দূরত্ব বজায় রেখে যাত্রী উঠাতে হবে, এবং গণপরিবহন গুলোতে হ্যান্ড স্যানিটাইজার থাকতে হবে।

এর পরবর্তীতে সরকার নতুন পদ্ধতি লকডাউন ঘোষণা করেছে।
সারা বাংলাদেশে সাধারণ ছুটি নিয়ে সরকার এখন কিছু ভাবছে না,
জোনভিত্তিক লক ডাউন এর মাধ্যমে বাংলাদেশ সরকার এই করোনার মোকাবেলা করতে চায়।

গত ৯ জুন জোন ভিত্তিক রাজধানীর পূর্ব রাজাবাজার এলাকায় পরীক্ষামুলকভাবে রেড জোন লকডাউন ঘোষণা করা হয়।
প্রাথমিকভাবে ১৪ দিনের জন্য লকডাউন কার্যকর করা হবে ওই স্থানে।

জনপ্রশাসন প্রতিমন্ত্রী ফরহাদ হোসেন আরো বলেন, আমরা জোনভিত্তিক লকডাউন চালু করেছি,
যেসব এলাকা গুলো সব থেকে বেশি ঝুঁকিপূর্ণ যেসকল এলাকাগুলোতে রেড জোন লকডাউন ঘোষণা করা হবে।

তিনি আরো বলেন, বর্তমান সময়ে যেভাবে দেশ চলছে, এইভাবে চলতে থাকবে, সাধারণ কোনো ছুটি ঘোষণা করা হবে না বলে জানিয়েছেন তিনি।

তবে রেড জোন এলাকাগুলোতে সাধারণ ছুটি ঘোষণা করা হবে বলে জানিয়েছেন জনপ্রশাসন প্রতিমন্ত্রী ফরহাদ হোসেন।

Leave a Reply

x