ডা. সাবরিনা চৌধুরী গ্রেফতার পর চল‌ছে পুলিশের জিজ্ঞাসাবাদ

করোনা ভাইরাসের নমুনা পরীক্ষার জালি’য়াতি মামলায় জাতীয় হৃদরোগ ইন্সটিটিউটের কার্ডিয়াক সার্জন ডা. সাবরিনা চৌধুরীকে গ্রেফ’তার করেছে পুলিশ।

রবিবার (১২ জুলাই) দুপুরে তাকে গ্রেফতা’রের পর তেজগাঁও বিভাগীয় উপ-পুলিশ (ডিসি) কার্যালয়ে আনা হয়। সেখানে তাকে জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে।

জেকেজি হেলথ কেয়ারে’র করোনা টেস্ট নিয়ে প্রতারণার অভি’যোগে এরইমধ্যে প্রতিষ্ঠান’টির প্রধান নির্বাহী আরিফ চৌধুরীকেও গ্রেফতার করা হয়েছে। ডা. সাবরিনা তার স্ত্রী।

জানা যায়, ঢাকাসহ দেশের বিভিন্ন জায়গা’য় করোনার নমুনা সংগ্রহ করে তা পরীক্ষা না করেই জেকেজি হেলথকে’য়ার ১৫ হাজার ৪৬০ টেস্টের ভুয়া রিপোর্ট সরবরাহ করে।

পুলিশ জানিয়েছে, জেকেজি হেলথ’কেয়ার থেকে ২৭ হাজার রোগীকে করোনার টেস্টের রিপোর্ট দেয়া হয়েছে। এর মধ্যে ১১ হাজার ৫৪০ জনের করোনার নমুনার আইইডিসি’আরের মাধ্যমে সঠিক পরীক্ষা করানো হয়েছিল।

বাকি ১৫ হাজার ৪৬০ রিপোর্ট প্রতিষ্ঠান’টির ল্যাপটপে তৈরি করা হয়। জব্দ করা ল্যাপটপে এর প্রমাণ মিলেছে।

গত ২৫ জুন তেজগাঁও থানায় দায়ের করা মামলায় তাকে গ্রেফতা’র দেখানো হয়েছে বলে জানি’য়েছেন তেজগাঁও বিভাগের উপ-কমিশনার হারুনুর রশিদ।

তিনি বলেন, ‘তদন্তে প্রতারণার সঙ্গে ডা. সাবরি’নার সংশ্লিষ্ট’তা পাওয়ায় তাকে গ্রেফতার দেখানো হয়েছে।

Articles You May Like

Leave a Reply

x