ঘূর্ণিঝড়ের আঘাতে নিহত ২, আহত ৩০ জন।

ঘূর্ণিঝড় বুলবুলের তান্ডবে সারাদেশে নিহিত হয়েছে ২ জন এবং আহত হয়েছে ৩০ জন।

তা ছাড়া ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে প্রায় চার থেকে পাঁচ হাজার ঘরবাড়ি।

দূপুরে এক সংবাদ ব্রিপিং এ জানিয়েছেন দূর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ প্রতিমন্ত্রী এনামুর রহমান।
তিনি বলেন, এ পর্যন্ত আমাদের কাছে খবর আসছে ২ জন নিহত হয়েছে এবং ৩০ জন আহত হয়েছে এর বাহিরে ৪-৫ হাজার কাঁচা ঘরবাড়ি ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে।
ঘূর্ণিঝড়টি এখনো বাংলাদেশে অবস্থান করছে,তবে ঘূর্ণিঝড়টি খুব দূর্বল হয়ে যাওয়ায় এটি তেমন কোনো প্রভাব ফেলবেনা।
তিনি আরো বলেন ঘূর্ণিঝড়টি যেহেতু খুব দূর্বল হয়ে গেছে, সোমবার থেকে সূর্যের আলো দেখা যাবে।

বুলবুল দূর্বল হয়ে যাওয়ায় মংলা ও পায়রা সমুদ্র বন্দরে ১০ নাম্বার মহাবিপদ সংকেত এর পরিবর্তে ৩ নাম্বার স্থানীয় সতর্ক সংকেত দেখাতে বলা হয়েছে এবং তার সাথে চট্রগ্রাম সমুদ্র বন্দরে ৯ নাম্বার মহাবিপদ সংকেত এর পরিবর্তে ৩ নাম্বার স্থানীয় সতর্ক সংকেত দেখাতে বলা হয়েছে।

এনামুর রহমান বলেন, ‘এবারের ঘূর্ণিঝড়ের আঘাত থেকে রক্ষা পেতে আমরা সর্বোচ্চ সংখ্যক মানুষ সরিয়ে নিতে সক্ষম হয়েছি যা ইতিহাস রেকর্ড করে। ৫ হাজার ৫৮৭টি আশ্রয়কেন্দ্রে ২১ লাখ ৬ হাজার ৯১৮ জনকে আমরা সফলভাবে সরিয়ে নিতে পেরেছি। নিরাপত্তা দিতে পেরেছি।’

Articles You May Like

Leave a Reply

x