ঘানায় ১৫ টি গ্রামের ৬৮৩১ জন মানুষ একসঙ্গে ‘ইসলাম ধর্ম’ গ্রহণ করলেন

ঘানার বিভিন্ন অঞ্চলের ১৫ গ্রামে ছয় হাজার ৮৩১ জন ইসলাম গ্রহণ করেছে বলে দাবি করেছে মুসলিম মিশনারি সংস্থা ‘মুওয়াসসাতু নুমা আল-খায়ের’।

সংস্থার দাবি অনুযায়ী ১৫ অমুসলিম গ্রাম ইসলামের ছায়াতলে আশ্রয় নিয়েছে, যেখানে আগে কোনো মুসলিম ছিল না। নুমা আল-খায়ের এসব গ্রামে দীর্ঘদিন ধরে সেবামূলক কার্যক্রম পরিচালনা করে আসছিল।

সংস্থাটি নওমুসলিমদের জন্য মসজিদ নির্মাণ করছে, তীব্র পানিসংকটে থাকা এসব গ্রামে খাবার পানির জন্য গভীর কূপ খনন করেছে এবং ৫৮টি পশু কোরবানি করে গোশত বিতরণ করেছে।

এ ছাড়া এসব গ্রামে সাতজন শিক্ষক নিয়োগ দিয়েছে নুমা আল-খায়ের। উল্লেখ্য, নুমা আল-খায়ের নভেম্বর ২০১১ সালে প্রতিষ্ঠিত এবং এরা আফ্রিকায় ইসলাম প্রচারের কাজ করে। সূত্র : আলুকা

আগামিতে মুসলমান হবে সবার শির মণি, সারাদেশে ছড়িয়ে দেবে আল কোরআনের বাণী।
পাল্লামেন্টে করবে চালু কোরআনের সংবিধান,
বিশ্ব জুড়ে তুলে ধরবে আল কোরআনের মান।

থাকবেনা সে দিন ঝগড়া ঝাটি থাকবেনা হানা হানি,
সবার মুখে থাকে সে দিন শান্তি সুখের বাণী।
খেলবে না কেউ মদ জুয়া খাবেনা কেউ গাজা”
কোরআনের আইন মেনে সবাই হয়ে যাবে সোজা।

থাকবে না কেউ গরিব দুঃখী থাকবে না অনাহারে..
নিত্য পন্য পুচিয়ে দেবে সবার ঘরে ঘরে,
সঠিক বিচার হবে সেদিন কোরআনের আইন দিয়ে।

Articles You May Like

Leave a Reply

x