কুমিল্লায় বিচারকের সামনে খুন।

কুমিল্লার আদালতে বিচারকের খাস কামরায় একটি হত্যা মামলার আসামি ফারুক খুন হয়েছে।
একই মামলার আসামি ঘাতক হাসান শুনানি চলাকালে অপর আসামি ফারুককে বিচারকের সামনে ছুরি নিয়ে তারা করে।ফারুক দৌড়ে বিচারকের খাস কামরায় চলে যায়,খাস কামরাতে হাসানের এর উপর এলোপাতাড়ি ছুরি আঘাত করে হাসান।গতকাল বেলা সাড়ে 11 টায় ঝরাজীর্ণ আদালতে পুলিশ আইনজীবী বিচারক ও দর্শনার্থীর সামনে চলচ্চিত্র স্টাইলে খুন করার এই কায়দায় সবাই আতঙ্কিত হয়ে পড়ে।ঘটনার পর পুলিশ ঘাতক হাসানকে ছড়া সহ গ্রেফতার করে।নিহত ফারুক কুমিল্লার মনোহরগঞ্জ উপজেলার কান্দি গ্রামের অহিদ উল্লার ছেলে বলে জানা গেছে।ঘাতক হাসান কুমিল্লার লাকসাম উপজেলার ভোজপাড়া গ্রামের শহীদ উল্লাহর ছেলে।কড়া নিরাপত্তায় মাঝে আদালতে কিভাবে ছুরি নিয়ে ঢুকতে পারে এই নিয়ে জনমনে আতঙ্ক সৃষ্টি হয়েছে।ঘটনা তদন্তে তিন সদস্যের কমিটি গঠন করা হয়েছে।
ঘটনার পর কুমিল্লা অতিরিক্ত জেলা ও দায়রা জজ তৃতীয় আদালতের বিচারক বেগম ফাতেমা ফেরদৌস সাংবাদিকদের বলেন আমার সামনে একজন আসামীকে ছুরিকাঘাতে হত্যা করা হলো।আমার উপর হামলা হতে পারতো আমি ভীষণ শঙ্কিত ও আমাদের নিরাপত্তা কোথায়?নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক একজন নবীন আইনজীবী বলেন পৃথিবীতে কোন দেশে আদালতে এমন খুনের ঘটনার নজির নেই,পুলিশ কর্মকর্তাদের আরো দায়িত্বশীল হতে হবে ।

রিপোর্ট : কাজী

Leave a Reply

x