কলঙ্কিত অধ্যায় মুছে নতুন ভূমিকায় ২২ গজে ফিরছেন সলমন বাট

আম্পায়র এবং ম্যাচ রেফারি’দের জন্য অন লাইন একটি কোর্স করানোর ব্যবস্থা করেছে পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ড। সোম’বার থেকে এই কোর্স শুরু হয়েছে।

২০১০ সালে ব্যাটিং কাণ্ডে জড়ানোর কারণে সব ধরনের ক্রিকেট থেকে দশ বছরের জন্য সলমন বাট’কে নির্বাসিত করেছিল আইসিসি। নির্বাসনের শাস্তি কাটিয়ে ফের ২২ গজে ফিরতে চাইছেন সলমন বাট। তবে এ বার একে’বারে অন্য ভূমিকায়।

আসলে ক্রিকেট মাঠের কালো অধ্যায়’কে পিছনে ফেলে নতুন করে শুরু করতে চাইছেন সলমন বাট। এ বার তিনি ম্যাচ রেফারি হিসেবে ক্রিকেটে ফিরতে চান।

আম্পায়র এবং ম্যাচ রেফারি’দের জন্য অন লাইন একটি কোর্স করানোর ব্যবস্থা করেছে পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ড। সোমবার থেকে এই কোর্স শুরু হয়েছে। আর এতে অংশ নিয়েছেন সলমন বাটও। তিনি ছাড়াও পাকিস্তানের আরও ৪৮ জন ক্রিকেটা’র এই কোর্সে নাম লিখিয়ে’ছেন।

আসলে পাকিস্তানের প্রাক্তন ক্রিকেটার’দের কাজের ব্যবস্থা করে দেওয়ার জন্যই এই অনলাইন কোর্স’টির ব্যবস্থা করেছে পিসিবি। প্রাক্তন পাক পেসার আব্দুল রাউফ, যিনি ৮টি আন্ত’র্জাতিক ম্যাচে পাকিস্তানের হয়ে প্রতিনিধিত্ব করেছেন, তিনিও এই কোর্স’টি করছেন বলে জানা গিয়েছে। এ ছাড়াও প্রাক্তন অল রাউন্ডার বিলাল আসিফও এতে অংশ নিয়েছেন। আসিফ আবার জাতীয় দলের জার্সিতে পাঁচটি টেস্ট এবং তিনটি এক’দিনের ম্যাচ খেলেছিলেন।

মোট ৩৫০ জন প্রতি’নিধি এই কোর্সটি করার জন্য অংশ নিয়েছেন। এখানে মূলত আম্পায়র’দের প্রাথমিক নীতি-নিয়ম এবং ক্রিকেটের আইনগুলি সম্পর্কে পরিষ্কার একটি ধারণা দেওয়া হবে। এরপর লিখিত পরীক্ষা এবং ফিটনেস টেস্ট হবে। সব শেষে ইন্টার’ভিউয়ের জন্য ডাকা হবে। এই কোর্সটি শেষ করার পরেই ক্লাব ক্রিকেট এবং স্কুলের ক্রিকেটে ম্যাচ অফিসিয়াল হিসেবে নিযুক্ত করা হবে সলমন বাট’দের।

Leave a Reply

x