করোনাভাইরাস থেকে মুক্ত হয়েছেন শহীদ আফ্রিদি ও তার পরিবার

সমস্ত পৃথিবীকে চলছে করোনা ভাইরাসের মহামারী,
প্রতিনিয়ত এই করোনা ভাইরাস এক ভয়ানক রূপ ধারণ করছে।

এই করোনা ভাইরাসের কবলে পড়েছেন অনেক বিশিষ্ট ব্যক্তি, এর ধারাবাহিকতায় করা ভাইরাসে আক্রান্ত হলেন পাকিস্তানের ক্রিকেট দলের অন্যতম খেলোয়াড় আফ্রিদি।

তিনি সাম্প্রতিক সময়ে করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হন।
শহীদ আফ্রীদি ১৩ জুন করোনা পরীক্ষার পর তার শরীরে করোনা ভাইরাসের সংক্রমণ দেখা দেয়,
পরবর্তীতে তিনি ডাক্তারের পরামর্শ অনুযায়ী চিকিৎসা নেন, এবং তিনি আইসোলেশন ছিলেন।

দীর্ঘ ১৯ দিন পর তার শরীরে করোনা নেগেটিভ দেখা দিয়েছে।
আফ্রিদি তার ফেসবুক ভেরিফাইড পেজ এই তথ্য নিশ্চিত করে বলেন, তিনি সহ তার দুই মেয়ে এবং স্ত্রী সকলের করোনা পরীক্ষা করার পর তার ফলাফল নেগেটিভ এসেছে।

নিজের অফিসিয়াল ফেসবুক পেইজে আফ্রিদি লিখেছেন, ‘আলহামদুলিল্লাহ, আমার স্ত্রী এবং দুই কন্যা আকসা ও আনসা করোনা পজিটিভ থেকে করোনা নেগেটিভ হয়েছে।

আপনাদের প্রার্থনার জন্য ধন্যবাদ এবং শোকরিয়া সৃষ্টিকর্তার কাছে। এখন আমার পরিবারের কাছে ফেরার সময়। অনেক মিস করেছি ওদের।’

পাকিস্তানের ক্রিকেটার শহীদ আফ্রিদি করোনা ভাইরাসের কঠিন পরিস্থিতিতে মানুষের কল্যাণে তিনি শুরু থেকেই কাজ করে যাচ্ছিলেন।

শহীদ আফ্রীদি করোনা ভাইরাসের প্রতিরোধক কল্যাণে মুশফিকুর রহিমের নিলামে তোলা ক্রিকেট ব্যাট কিনে নিয়েছিলেন ২০ হাজার ডলার দিয়ে ।

এছাড়াও তিনি পাকিস্তানে তার নিজ তহবিল থেকে করোনার কঠিন পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে অনেক সাহায্য সহযোগিতা করেছেন।

Articles You May Like

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *