একে অপরের গা জড়িয়ে তুমুল লড়াই করছে বিশাল আকারের দু’টি কোবরা সাপ, ঘটল বিপ’ত্তি, তুমুল ভাইরাল ভিডিও

সাপ সব’সময়ই এক রহস্যময় জাতি। পুরা’কালে অনেক উপকথাতেই সাপের বিভিন্ন অলৌ’কিক ক্ষমতার পরিচয় পাওয়া গেছে। বলা হয় সাপ সম্মোহন ক্ষম’তার সাহায্যে জীব’জন্তুকে বশ করে শিকার ধরে। এমনকি হিন্দু ধর্মে সাপকে দেবী মা মনসার বাহন হিসেবে পূজা করা হয়।

এমনকি মহা’দেবের গলাতেও দেখা যায় বাসুকি’নাগ কে। হিন্দু ধর্মের স্বয়ং বিষ্ণু শায়িত রয়েছেন শেষ নাগের কোলে, সুতরাং সাপকে যে পুরাকালে অনেক বড় আসনে বসানো হয়েছিল সেই সম্পর্কে কোন সন্দেহ নেই। কিন্তু বর্ত’মানে সাপ’কে অলৌ’কিক ক্ষমতার অধিকারী হিসেবে,

না মানা হলেও তার বিষ’কে ভয় করেন সবাই। কিন্তু পৃথিবী’তে বিষধর ও বিষহীন, দুই ধরনের সাপই রয়েছে। সাপ এমনি’তেই নিরীহ প্রাণী, দৃষ্টি শক্তি দুর্বল। সাপের অনুভূতি ক্ষমতা প্রবল হওয়ায় সে এক’মাত্র তার মাধ্যমে নিজের রক্ষা করে এবং শিকার ধরে।

এহেন অব’স্থায় সাপ এক’মাত্র ভয় পেলে বা আত্ম’রক্ষার জন্যই কাউ’কে ছোবল মারতে থাকে। কিন্তু মানুষ না বুঝেই বহু সাপকে মেরে ফেলেন। এজন্যই বর্তমানে তৈরি হয়েছে বহু রেস্কিউ টিম, সর্প রক্ষক’রা এগিয়ে এসেছেন সাপকে বাঁচানোর কাজে।

কিন্তু সর্প’রক্ষক হওয়া মোটেই সহজ কাজ নয়। অনেক কম বয়স থেকেই এই কাজের জন্যে ট্রেনিং নিতে হয়। বিশে’ষত সাপ খুবই আক্র’মনাত্মক প্রাণী, রেগে গেলে যে কোন সময় সে দংশন করে দেয়। বিষের জ্বালায় যে কোন মানু’ষের মৃত্যু পর্যন্ত হতে পারে।

তাই সে ক্ষেত্রে সাপ সম্প’র্কে জানা এবং সেই সম্পর্কিত সমস্ত বিজ্ঞা’নের শাখা গুলি জানা খুবই গুরুত্ব’পূর্ণ। সর্প’রক্ষক মির্জা মহাম্মদ আরিফ অত্যন্ত জনপ্রিয়। বিশেষ করে তার ভিডিওগুলি সব’থেকে বেশি ভাইরাল হয়। তাকে অধি’কাংশ মানুষই ভালোবাসেন।

তার ভিডিওতে বারবার ফুটে উঠেছে তার মানবি’কতার দিকটি। তবে এসব কাজে প্রাণহানির আশঙ্কা প্রবল। সোশ্যাল মিডিয়ায় নানা’রকম ভাইরাল ভিডিওর ভিড়ে পিছিয়ে নেই সাপেরা ও। সম্প্রতি ভাইরাল হয়েছে দুই সাপের একটি অসা’ধারণ ভিডিও। ভিডিওটিতে দেখা যাচ্ছে, দুই সাপের লেগে গেছে তুমুল লড়াই।

একে অপর’কে ছোবল মেরে লেজ দিয়ে আঘাত করে কাবু করার চেষ্টা চলছে, কিন্তু হার মানছে না কেউই। সাধারণত পুরুষ সাপে’দের মধ্যে স্ত্রী সাপের উপর অধিকারকে কেন্দ্র করে এরকম লড়াই দেখা যায়, কিন্তু ভিডিও’টিতে বোঝা যাচ্ছে না সাপটি স্থান-কাল বা লিঙ্গ।

কেউ হাঁপিয়ে যাচ্ছে না এই লড়াই’য়ে, স্থানীয় একজন ভিডিওটি করে পোস্ট করেন সোশ্যাল মিডি’য়ায়। সাধারণত এরূপ লড়াইয়ে যেকোনো একটি সাপ হয় হার মেনে চলে যায়, না হলে তার মৃত্যু ঘটে থাকে। কিন্তু এখানে সাপ দুটি একে অপর’কে পাকিয়ে ধরে তুমুল লড়াই করছে, শেষ পর্যন্ত কি হয়েছে বোঝা যাচ্ছে না।

দুর্ধর্ষ লড়াই’য়ের ভিডিও ঝড়ের গতিতে ভাইরাল হয়েছে সো’শ্যাল মিডিয়া তে, নেটিজেন’রা অবাক সাপের এই ব্যবহারে। অফিসিয়াল একটি ইউটিউব চ্যানেল থেকে ভিডিও’টি পোস্ট করা হয়েছে। হাজার হাজার মানুষ ভিডিওটি লাইক করেছে।

বিশেষ করে সাপে’র এই অদ্ভুত আচ’রণে অবাক ক’রেছে মানুষকে, কি কারণে তাদের লড়াই তা বোঝা না গেলেও তাদের দুcর্ধর্ষ লড়াই দেখে অবাক হয়ে গেছেন তারা ক’মেন্ট বক্স ভরে গেছে নানা রকম কমেন্ট। ভিডিও’টিতে শেষ পর্যন্ত আসল কারণ সম্পর্কে কেউ কিছু বলতে পারেননি।

সোশ্যাল মিডিয়া তে প্রায় এ’রকম অদ্ভু’ত ভিডিও ভাইরাল হয়, যা আমাদের সত্যি অবাক করে দেয়। এর আগেও ভাই’রাল হয়ে’ছিল লাল গোলাপ কে আলিঙ্গন করে আছে এক বিরল ব্লু ভাইপার,যা সারা’বিশ্বের মানুষকে অবাক করেছিল। এরকম ভি’ডিও দেখা সম্ভব হয় সোশ্যাল মিডিয়ার জন্য ই,তার জন্য জা’নাই কুর্নিশ।

Leave a Reply

x