আলহামদুলিল্লাহ! অবশেষে সাতক্ষীরা থেকে গ্রেফতার করা হল রিজেন্ট হাসপাতালের মালিক সাহেদকে

র‍্যাবের হাতে গ্রেফতার হওয়া রিজেন্ট গ্রুপ ও রিজেন্ট হাসপাতাল লিমিটেডের চেয়া’রম্যান সাহেদ করিম ওরফে মো. সাহেদকে ঢাকায় আনা হচ্ছে। সাতক্ষীরা থেকে র‍্যাবের অভি’যান দলের সাথে হেলিকপ্টার যোগে তাকে ঢাকায় আনা হবে।

র‍্যাবের লিগ্যাল ও মিডিয়া উইং বিষয়টি নিশ্চিত করেছে। র‍্যাব জা’নায়, সকাল সাড়ে ৮ টা নাগাদ সাহেদকে বহনকারী হেলিকপ্টারটি ঢাকা ক্যান্টনমেন্টের তেজগাঁও বিমানব’ন্দরে এসে পৌছোবে। ধারণা করা হচ্ছে, বিমানবন্দর থেকে সাহেদকে জিজ্ঞাসা’বাদের জন্য র‍্যাব সদরদপ্ত’রে নেয়া হতে পারে।

এর আগে, করোনা টেস্টের ভুয়া রিপোর্ট প্রদান, অর্থ আত্মসাতসহ প্রতারণার অভিযো’গে রিজেন্ট গ্রুপ ও রিজেন্ট হাসপাতাল লিমিটেডের চেয়ারম্যান সাহেদ করিম ওরফে মো. সাহেদ’কে গ্রেফতার করে র‍্যাব। বুধবার সাতক্ষীরা সীমান্ত এলাকা থেকে তাকে গ্রেফতার করা হয়।

গত ৬ জুলা’ই রিজেন্ট হাসপাতা’লের উত্তরা ও মিরপুর শাখায় অভিযান চালায় র‌্যাব। অভিযানে ভুয়া করোনা পরীক্ষার রিপোর্ট, করোনা চিকিৎসার নামে রোগীদের কাছ থেকে অর্থ আদায়সহ নানা অনিয়ম উঠে আসে। পরে রোগীদের সরিয়ে রিজেন্টের উত্তরা ও মিরপুর শাখা সিল’গালা করে দেয়া হয়।

গ্রেফতার করা হয় ৮ জনকে। এরপর বৃহস্পতিবার রিজেন্ট গ্রুপের চেয়ার’ম্যান সাহেদের প্রধান সহযোগী তারেক শিবলী গ্রেফতার করা হয়। হেফাজতে নেয়া হয় টিভি নাটকের অন্যতম প্রযোজনা প্রতিষ্ঠান ‘টেলিহোম’র প্রধান ও সাহেদের ভায়রা মোহাম্ম’দ আলী বশিরকে।

এর আগে ম্যাজিস্ট্রেট সারো’য়ার আলম বলেন, পরীক্ষার নামে ভুয়া রিপোর্ট দিয়ে পৃথিবীর অন্য কোন দেশ এই ইতিহাস তৈরি করেছে বলে আমার জানা নেই। আমার ধারণা একমাত্র বাংলা’দেশেই এই সমস্ত কিছু লোক টেস্টের নামে আমাদের দেশকে কলঙ্কিত করেছে।আমরা আশা করছি এই অপরাধের কারণে তাদের মারাত্মক শাস্তি হবে।

আমরা চাই না এই কোভি’ড-১৯ নিয়ে কেউ কোন প্রতারণার আশ্রয় নিক। আমরা এই অপরাধের সাথে এই প্রতিষ্ঠানের চেয়ারম্যা’ন শাহেদ, ব্যবস্থাপনা পরিচালক (এমডি) মাসুদসহ বেশকিছু কর্মকর্তা জড়িত রয়েছে’ন।

একারণে আমরা ৮ জনকে আটক করেছি। তাদেরসহ জড়িত প্রত্যে’কের বিরুদ্ধে নিয়মিত ধারায় মামলা করা হবে। তাদের প্রত্যেককে আইনের আওতায় নিয়ে আসবো।
সূত্রঃ জাগোনিউজ২৪ডটকম

Articles You May Like

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *