আবার ভারত এবং চীন সেনাবাহিনীর মধ্যে চরম উত্তেজনা, করোনার কঠিন সময়ে যুদ্ধের প্রস্তুতি

সমস্ত পৃথিবীকে চলছে কোন ভাইরাসের মহামারী,
করোনারি মহামারীতে ভারত এবং চীনের মধ্যে চলছে যুদ্ধের প্রস্তুতি।

ভারত এবং চীন সীমান্ত এলাকাগুলোতে পাল্লা দিয়ে বাড়িয়ে দেওয়া হচ্ছে সেনাবাহিনী।

ভারতের প্রতিরক্ষামন্ত্রী ঘোষণা দিয়েছে, ভারত এবং চীনের মধ্যকার সীমান্ত এলাকাগুলোতে যদি চীন সেনাবাহিনী বাড়ায়,
তাহলে তারই পরিপ্রেক্ষিতে ওইসব সীমান্ত গুলোতে ভারত সেনাবাহিনী মোতায়েনের ঘোষণা দিয়েছে ভারত প্রতিরক্ষামন্ত্রী।

ভারতের প্রতিরক্ষামন্ত্রী উচ্চপদস্থ কর্মকর্তাদের নিয়ে বৈঠক করেছেন,
এবং চীন সরকার সেনাবাহিনীকে যুদ্ধের প্রস্তুতি নিয়ে থাকতে বলেছেন।

ভারত এবং চীন সীমান্ত রেখার তিনটি সেক্টরে ভারত সেনাবাহিনী এবং চীন সেনাবাহিনীর মধ্যে সংঘর্ষের কথা জানা গেছে।

৫ মে থেকে ভারত এবং চীন সেনাবাহিনীদের সম্পর্ক অবনতির দিকে যাচ্ছে।
এর মাঝে চীন সরকার পতাকা বৈঠকের প্রস্তাব দিয়ে পরবর্তীতে তারা এই প্রস্তাবকে প্রত্যাখ্যান করে বলে জানা যায়।

চীনের সেনাবাহিনী দের কে সামাল দিতে ভারত সরকার সীমান্ত এলাকা নিয়ন্ত্রণ বিষয়ে তিন বাহিনীর প্রধান দের সাথে বৈঠক করেছেন ভারত সরকার।

তাদের ওই বৈঠকে এই সিদ্ধান্তে উপনীত হয় যে তাদের মাঝে আলোচনার মাধ্যমে সমঝোতা আনা সম্ভব।

যদিও প্রাকৃতিকভাবে চীন সীমান্ত অঞ্চল গুলোতে সেনা মোতায়েন করে,
তার সাথে পাল্লা দিয়ে ভারত সীমান্ত গুলোতে সেনাবাহিনী মোতায়েন করবে বলে এমন টা জানা গেছে।

এছাড়াও জানা গেছে ওইসব সীমান্ত এলাকাগুলোতে চীন সরকার ১০ হাজার সেনা মোতায়েন করছে বলে জানা যায়।

এবং এসব সেনাবাহিনীদের পাশাপাশি রাখা হয়েছে কয়েকটি যুদ্ধবিমান।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *