আপন বোনকে জোর করে নিজের রুমে নিয়ে ধর্ষণ, ছেলেকে হত্যা করল বাবা-মা

রাতে মদ খেয়ে বাড়ি’তে গিয়ে আপন বোন’কে ধর্ষণ চেষ্টা করে মো. হাসান মিয়া নামের ১৭ বছরের এক কিশোর। এ সময় ছেলে’কে মারধর করে বাবা-মা। একপর্যায়ে মৃত্যু হলে তাকে ডোবায় ফেলে দেয় পরিবারের সদস্য’রা।

মুন্সিগঞ্জের গজারিয়া উপ’জেলার হোসেন্দী গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। শনিবার সকালে গজারিয়ার হোসেন্দী বাজার এলাকা থেকে হাসান মিয়ার বাবা, মা ও বোন’কে আটক করেছে পুলিশ।

আটক’কৃতরা হলেন- নিহত হাসানের বাবা মো. শামীম শিক’দার (৪০), মা হাসিনা বেগম (৩৮) ও বোন (১৫)। এর আগে শুক্র’বার সকাল ১১টার দিকে বাড়ির পাশের ডোবা থেকে হাসানের মরদেহ উদ্ধার ক’রে পুলিশ।

হত্যা করে মর’দেহটি ডোবায় ফেলে দেয়ার ১৭ দিন পর উদ্ধার করা হয়। পচা-দুর্গন্ধের খোঁজ করতে গিয়ে অর্ধ’গলিত মরদেহের সন্ধান পায় তার স্বজন’রা। এরপর পুলিশকে খবর দেয় এলাকা’বাসী।

গজারিয়া থানার ওসি মো. রইছ উদ্দিন বলেন, নিহত হাসান মিয়া মাদকা’সক্ত ছিল। ঘটনার দিন রাতে তার বোন’কে জোর করে নিজের রুমে নিয়ে ধর্ষণের চেষ্টা করে। বোনের চিৎকারে মা, বাবা এসে ছেলেকে মারধর করলে এক’পর্যায়ে মৃত্যু হয় হাসানের।

ওসি জানান, এরপর মর’দেহটি বাড়ির পাশে ডোবায় ফেলে দেয় পরিবারের সদস্যরা। এ ঘটনা প্রত্যক্ষ করে নিহতের ছোট ভাই। তাকে জিজ্ঞাসা’বাদ করেই ঘটনার মূল রহস্য জানা গেছে। সে মামলার বাদী। আটক’দের রোববার আদালতে পাঠানো হবে।

Leave a Reply

x