অক্সফোর্ডে করোনার ভ্যাকসিন তৈরীর কাজে দুই বাঙালি কন্যা,

সারাবিশ্বে প্রাণঘাতী করোনাভাইরাস ২ লক্ষর বেশি মানুষ মারা গেছে।
এবং সারা পৃথিবীতে ৩১ লাখেরও বেশি মানুষ এই করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছে।

পৃথিবীতে মানুষ এই করোনা ভাইরাসের কাছে অসহায় হয়ে আছে।

পৃথিবীর সব মানুষ এখন চেয়ে আছে কবে এর প্রতিষেধক আবিষ্কার হয়।

মানুষের মনে আশার আলো দেখালো অক্সফোর্ড বিশ্ববিদ্যালয়ের একটি ইউনিট।

এই করোনা ভাইরাসের ভ্যাকসিন আবিষ্কার করেছে অক্সফোর্ড বিশ্ববিদ্যালয়ের এ ইউনিট।

এই ভ্যাকসিনের এখন ক্লিনিক্যাল ট্রায়াল চলছে।

করোনা ভাইরাসের ভ্যাকসিন নিয়ে অক্সফোর্ড বিশ্ববিদ্যালয়ের যারা কাজ করছে এদের মধ্যে দুইজন বাঙালিকন্যা সুমি বিশ্বাস, চন্দ্রা দত্ত।

অক্সফোর্ড বিশ্ববিদ্যালয়ের যারা করোনা ভাইরাসের ভ্যাকসিন নিয়ে গবেষণা করছে এদের দলে আছে সুমি বিশ্বাস।

গত সপ্তাহে বিজ্ঞানীরা এই করোনা ভাইরাসের ভ্যাকসিন নিয়ে পরীক্ষা করা হয়েছে,
বিজ্ঞানীরা বলেছে এই করোনা ভাইরাসের ভ্যাকসিন সফল হওয়ার সম্ভাবনা ৮০%।

চন্দ্রা দত্ত এই করোনা ভাইরাসের ভ্যাকসিন তৈরীর গুণগত মানের দিকে নজর রাখে।

তিনি দেখেন এই করোনার ভ্যাকসিন ঠিকঠাকমতো উৎপাদন হচ্ছে কিনা,
এর গুণগত মান ঠিক আছে কিনা এসব বিষয়ে লক্ষ্য রাখেন চন্দ্রা দত্ত।

সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে কর্তৃপক্ষ বলেন,
এ ভ্যাকসিনের ট্রায়েলের কাজ শেষ হলে বাজারে ছেড়ে দেওয়া হবে এই করোনা ভ্যাকসিন।

Articles You May Like

Leave a Reply

x